যায়যায়বেলা
যায়যায়বেলা

আখাউড়ায় উপর দিয়ে ট্রেন গেলেও অলৌকিকভাবে বেঁচে যান লিজা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় লিজা আক্তার-(১৯) নামে এক গৃহবধূর উপর দিয়ে ট্রেন গেলেও অলৌকিকভাবে বেঁচে যান তিনি।

আজ শুক্রবার(২২জুলাই)শুক্রবার সন্ধ্যায় আখাউড়ার বাইপাস এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

ঘটনার শিকার লিজা আক্তার আখাউড়া উপজেলার বড় কুড়িপাইকা গ্রামের লিটন ভূঁইয়ার মেয়ে ও একই এলাকার জুনাইদ গাজীর স্ত্রী। সামান্য ব্যথা পেয়ে ওই গৃহবধূ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে চলে গেছেন। তবে তিনি খুবই ভয় পেয়েছেন। ঘটনার সময় তার স্বামী ও আরেক স্বজন গৃহবধূর সাথে ছিলেন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী উপজেলার গাজীর বাজার এলাকার মোঃ আমজাদ ভূঁইয়া জানান, সন্ধ্যায় দুই তরুনি ও এক যুবক তিতাস ব্রীজের উপরে উঠে উঠে ছবি তুলছিলেন। এমন সময় নোয়াখালীগামী উপকূল এক্সপ্রেস ট্রেন আসতে দেখে তাদের প্রত্যেকেই ব্রীজ থেকে নিরাপদে সরে যান। এর মধ্যে সবার সামনে থাকা লিজা আক্তার ব্রীজ থেতে সরতে গিয়ে হোঁচট খেয়ে রেললাইনে পড়ে যান। তখন তার উপর দিয়ে ট্রেনটি চলে যায়।’

মোঃ আমজাদ ভূঁইয়া জানান আরো বলেন, আমি মূলত ট্রেনের ভিডিও করছিলাম। তখন ওই মেয়েটি ট্রেনের নিচে পড়ে থাকার ভিডিও ধারণ করি। ট্রেনটি চলে যাওয়া মাত্র ওই তরুনীর মাথায় পানি ঢেলে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়।

তবে এ বিষয়ে পরিবারের সদস্যরা কিছু বলতে রাজী হননি। হাসপাতাল থেকে তারা তড়িঘড়ি করে লিজাকে বাড়িতে নিয়ে যান।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক মোঃ ইকরাম জানান, ওই গৃহবধূর শরীরে ব্যথা আছে। তবে আঘাতের কেনো চিহ্ন নেই। পরিবারের সদস্যরা তাকে বাড়িতে নিয়ে গেছেন।

এ ব্যাপারে আখাউড়া রেলওয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাজহারুল করিমের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সতত্যা নিশ্চিত করে বলেন, এ ধরণের ভিডিওর কথা শুনেছি। বিষয়টি খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।

যায়যায়বেলা