যায়যায়বেলা
যায়যায়বেলা

নবীনগরে তিতাস নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে তিতাস নদীর তীরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। রোববার (১২ মার্চ) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার তিতাস নদীর পাড় নৌঘাটে অভিযান পরিচালনা করে উচ্ছেদ করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকারী নবীনগর উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদা জাহান বলেন,উপজেলার তিতাস নদীর পাড় ঘেঁষে অনেক অবৈধ দোকান গড়ে উঠেছিলো। আজ সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উপজেলার তিতাস নদীর পাড়ে সরকারি জায়গা অবৈধভাবে দখল করে অনেকগুলো নির্মিত দোকান জনগণের চলাচলের সুবিধার্থে উচ্ছেদ করা হয়। বাকি দোকানগুলোকে আজকের মধ্যে সরিয়ে নেয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবং তাদের কাছ থেকে মুচলেকাও নেয়া হয়।

তিনি বলেন, উচ্ছেদের পাশাপাশি বিভিন্ন রুটে চলাচলকারী নৌযানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে নৌযানে জীবন রক্ষাকারী বিভিন্ন সরঞ্জাম না থাকায় ও নৌযানে অতিরিক্ত যাত্রী উঠানোর অভিযোগে ১টি নৌযানকে আটক করা হয়। অভ্যন্তরীণ নৌ চলাচল অধ্যাদেশ-১৯৭৬ ধারায় ১টি মামলায় নৌযান গুলোকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

তিতাস নদীর তীরে ১টি হোটেলে অস্বাস্থ্যকর খাদ্য তৈরী ও পরিবেশনে জন্য ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে খাবার হোটেলটিকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করেন। তাছাড়া তিতাস নদীর পাড়ে বসে মাদক সেবনের দায়ে ১ ব্যক্তিকে ১ মাসের কারাদণ্ড ও ১শ’ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জনস্বার্থে এই অভিযান ও ভ্রাম্যমাণ আদালত অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

যায়যায়বেলা