যায়যায়বেলা
যায়যায়বেলা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বিপুল পরিমাণের মাদক  ধ্বংস 

সোহেল সরকার,
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সংবাদদাতা:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট
 আদালতে প্রাঙ্গণে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রর  মোঃ মাসুদ পারভেজ তত্ত্বাবধানে বিপুল পরিমাণের মাদক ধ্বংসের  করা হয়।গত ২৪/০৫/২০২২ শে মঙ্গলবার  বিকাল ৬ টা । বিভিন্ন প্রকারের মাদক ধ্বংস করা হয।
চীফ জুডিসিয়াল  ম্যাজিস্ট্রেট আদালত প্রাঙ্গণে রোলার চাপা দিয়ে ও আধুনিক চুল্লিতে অগ্নিসংযোগ  করে  এই মাদক ধ্বংস করা হয়। এতে মাদকের পরিমাণ গাজা ১৮৮৭.৯৫৫ কেজি যাহার মূল্য ১৮,৮৭৯,৫৫০ টাকা।
 ফেনসিডিল ১৫১৪ বোতল যাহার মূল্য ১,৫১৪০০০ টাকা। ইয়াবা ৩২৬০৩ পিছ যাহার মূল্য ৯৭৮০৯০০ টাকা। ইঙ্কফ ২৮১৮ বোতল যাহার মূল্য ২২৫৪৪০০ টাকা। বিদেশি মদ ১৬০ বোতল যাহার মূল্য ২৪০০০০ টাকা টিএসপি সার এক বস্তা ৫০ কেজি যাহার মূল্য ২০০০ টাকা।  চোলাই মদ ১.৮০০.লিটার যাহারা মূল্য ১৮০০ টাকা।
হেরোইন ১ পুরিয়া যাহার মূল্য ৩৫০০ টাকা।
ধ্বংশকৃত আলামতের সর্বমোট মূল্য ৩,২৬,৭৬১৫০ টাকা।
মাদক ধ্বংসের সময় চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুদ পারভেজ  বলেন যুবসমাজকে ধ্বংস করে দেয় মাদক।মাদক থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান তিনি এবং মাদক নির্মূলে আমরা বিচার বিভাগ বিচারকাজ নিরলসভাবে করে যাচ্ছি এবং কোর্টের মালখানা যানজট মুক্ত রাখার জন্য এই মাদক প্রতিমাসে ধ্বংস করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন। , জুডিসিয়াল ম্যজিস্ট্রে সাদেকুর রহমান, জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রকিবুল হাসান রকি, জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ শাখাওয়াত হোসাইন, জুডিসিয়াল স্বাগত সাম্য।
ভারপ্রাপ্ত প্রশাসনিক কর্মকর্তা  সুমন ময় চৌধুরী, সে রাস্তা মোহাম্মদ জসীমউদ্দীন, কোর্টের কর্মকর্তা – কর্মচারী কোট পুলিশ সদস্যরা ও গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন
যায়যায়বেলা