যায়যায়বেলা
যায়যায়বেলা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ উপ-নির্বাচন: বিজয়ী নৌকার প্রার্থী অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু

জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরাইল ও আশুগঞ্জ-২ শূন্য আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু নৌকা প্রতীক নিয়ে ৬৬ হাজার ৩১৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক সংসদ সদস্য ও স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট জিয়াউল হক মৃধা কলারছড়ি প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩৭ হাজার ৭৫৮ ভোট।আর তার জয়ের মধ্য দিয়ে দীর্ঘ ৫০ বছরের আক্ষেপ ঘুচালো আওয়ামী লীগ। ১৯৭৩ সালের পর এবারই এ আসনে থেকে আওয়ামী লীগের কোনো প্রার্থী নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন। যদিও ২০০৮ ও ২০১৪ সালে মহাজোটের অংশ হিসেবে এ আসনটি জাতীয় পার্টিকে ছেড়ে আসছিল বৃহৎ এ দলটি। তবে স্বাধীনতার পর থেকে এ আসনটি বেশিরভাগ সময় ছিল বিএনপির দখলে।১৩২টি ভোট কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফলাফল অনুযায়ী নৌকা প্রতীকে অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু পেয়েছেন ৬৬ হাজার ৩১৪ ভোট এবং তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী (কলার ছড়ি) ও সাবেক দুই বারের সংসদ সদস্য এডভোকেট জিয়াউল হক মৃধা। তিনি পেয়েছেন ৩৭ হাজার ৭৫৮ ভোট। এর আগে তিনি ২০০৮ ও ২০১৪ সালে মহাজোট সরকারের অংশ হিসেবে এ আসন থেকে সংসদ সদস্য হয়েছিলেন। এছাড়াও অন্যান্য প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা পেয়েছেন জাতীয় পার্টির (লাঙ্গল) আব্দুল হামিদ ভাসানী পেয়েছেন তিন হাজার ১৪২ ভোট, জাকের পার্টির জহিরুল ইসলাম জুয়েল (গোলাপ ফুল) পেয়েছেন ৫৬১ ভোট এবং ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (আম) ৭৩৯ ভোট।এরআগে, সকাল ৮টা থেকে সরাইল ও আশুগঞ্জ উপজেলার মোট ১৩২টি ভোটকেন্দ্রে একযোগে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। ভোটগ্রহণ চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এ বিষয়ে জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল বারী চৌধুরী মন্টু বলেন, সুদীর্ঘ বছর ধরে এ আসনে দলীয় প্রার্থী না থাকায় আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ ছিল। তবে এবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরাইল ও আশুগঞ্জবাসীকে বিশ্বাস করে আওয়ামী লীগ থেকে প্রার্থী দিয়েছেন এবং এই দুই উপজেলার জনগণ প্রধানমন্ত্রীর সেই বিশ্বাসের মর্যাদা রেখেছে। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সরাইল ও আশুগঞ্জবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। নির্বাচনের সার্বিক নিরাপত্তায় ৮০০ পুলিশ, সাত প্লাটুন বিজিবিসহ র‌্যাব, আনসার, জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ পর্যাপ্ত পরিমাণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করে। প্রসঙ্গত, গত ৩০ সেপ্টেম্বর এ আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া মৃত্যুবরণ করায় উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। এই আসনে মোট ভোটার সংখ্যা চার লাখ ১০ হাজার ৭২ জন।

যায়যায়বেলা