যায়যায়বেলা
যায়যায়বেলা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাংবাদিক রিপনের উপর হামলার অভিযোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাংবাদিক এহসানুল হক রিপনের উপর হামলা ও মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সে দৈনিক সন্ধ্যাবাণী পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি ও বিজয় টিভির আশুগঞ্জ প্রতিনিধি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ভুক্তভোগী এহসানুল হক রিপন বলেন, আমি সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় শফিকুল ইসলাম পিতা:হাজী ইদ্রিস মিয়া,অনিক পিতা :শফিকুল ইসলাম গ্রাম;বুধল সহ আরো অজ্ঞাতনামা ৩০/৩৫ জনকে আসামী করা হয়। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,৪/১২/২০২২ তারিখে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা কার্যালয়ে বুধল উচ্চ বিদ্যালয়ের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় উক্ত নির্বাচনে আসামীদের প্রার্থী মোঃ ছাব্বির সভাপতি বিজয়ী হন এবং তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বুধল ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান শফিক পরাজিত হন। সাংবাদিক এহসানুল হক রিপন নির্বাচন বিষয়ে পরাজিত প্রার্থীর ভিডিও সাক্ষাৎকার নেওয়ার পর আসামীরা দলবদ্ধভাবে সাংবাদিককে হামলা করে মারাত্মক জখম করেন সে গুরুতর আহত অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নেন।

হামলার সময় আসামীরা সাংবাদিকের হাতে থাকা একটি ডি এস এল আর ক্যামেরা যার মূল্য ৮৫০০০/টাকা ও নগদ-৮৪৩০/ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ সূত্রে জানা যায়।

সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি দীপক চৌধুরী বাপ্পি বলেন, আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই, অচিরেই যেন আসামীদের গ্রেফতার করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন বলেন, রিপনের উপর হামলার ঘটনায় তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি আমি দ্রুত অপরাধীদের গ্রেফতার দাবী করছি।

সাংবাদিকের হামলার বিষয়ে জানতে চাইলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ওসি এমরানুল ইসলাম বলেন, আমরা অভিযোগ পেয়েছি এবং যারা হামলার সাথে জড়িত তাদের গ্রেপ্তার করতে অভিযান অব্যাহত আছে।

যায়যায়বেলা