যায়যায়বেলা
যায়যায়বেলা

সরাইলে নদী দখলদারদের তালিকা করেছেন ইউএনও

মাইনুদ্দীন চিশতী ব্রাহ্মণবাড়িয়ারব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার অরুয়াইল বাজারে অভিযান চালিয়ে নদী দখলদারদের তালিকা করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃআরিফুল হক মৃদুল। গতকাল শুক্রবার (১৮ফেব্রুয়ারী) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ওই অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আরিফুল হক মৃদুল।

প্রশাসনের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ৩০ বছর ধরে উপজেলার অরুয়াইল বাজারের পাশ দিয়ে প্রবাহিত তিতাস নদী দখল করে পাকা ঘর বানিয়ে ব্যবসা করছেন এলাকার কিছু প্রভাবশালী লোক। এমন ১৬জন দখলদারের তালিকা করেন তাঁরা। তাছাড়া নকশা দেখে সার্ভেয়ারের মাধ্যমে মেপে দখলকৃত ঘর চিহ্নিত করে লাল রঙ দিয়ে ক্রস চিহ্ন দেয়া হয়। পরবর্তীতে নদী রক্ষা কমিশনের নির্দেশে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হবে বলে জানায়। অভিযানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আরিফুল হক মৃদুল’র নেতৃত্বে সহকারী কমিশনার (ভূমি)ফারহানা নাসরিন ও অংশ নেয়।

এছাড়াও জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সহকারী প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম,ভূমি রাজস্ব কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন,সার্ভেয়ার ওয়াসিম আকরাম,সরাইল থানা পুলিশ ও উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।দখলদার আবদুর রুউফ বলেন,আমরা ক্রয়সূত্রে এই জায়গার মালিক।তাছাড়া আদালতের রায়ও আমরা পেয়েছি। তাই পাকা ঘর করে দোকান দিয়ে ব্যবসা করছি।’

এ ব্যাপারে সরাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃআরিফুল হক মৃদুল বলেন,আমরা সরেজমিনে এলাকায় গিয়ে দেখে,সার্ভেয়ার দিয়ে মেপে যারা নদীর জায়গা দখল করে রেখেছেন বা ব্যবসা করছেন তাঁদের তালিকা করেছি। দখলদারদের নাম জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনে পাঠাবো। নদী রক্ষা কমিশনের নির্দেশে পরবর্তীতে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের সহযোগীতায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হবে।’

যায়যায়বেলা